জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার বিস্তারিত সকল খুঁটিনাটি

উচ্চশিক্ষার কথা মাথায় আসলেই সবার প্রথমেই নাম আসবে হয়ত আমেরিকা, কানাডার মত দেশগুলোর কথা। তবে আপনি জানেন কি উচ্চশিক্ষার জন্য জার্মানি কতটা এগিয়ে! টিউশন ফি না থাকার কারনে এই দেশটি বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোও কোন অংশে কম নয়। বিশ্বের ১০০টি সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৩টি জার্মানির। আজকের এই লেখাইয় জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার সকল তথ্য জানার চেষ্টা করব।

২০২১ সালের QS র‍্যাঙ্গিংয়ে সেরা ১০০টির মধ্যে ৩টি এবং ২০০টির মধ্যে জার্মানির ১১টি এবং সেরা ৫০০টির মধ্যে ৩০টি জার্মানদের দখলে। সুতরাং বুঝতেই পারতেছেন ইউনিভার্সিটির মান কোন অংশে কম নয়।

সেরা ৩টি ইউনিভার্সিটি কোনগুলো ?  

 ➤ University Of Munich

 ➤ Ludwig Maximilian University of Munich

 ➤ Heidelberg University

বিদেশে পড়াশোনার জন্য কেন জার্মানিকে বেছে নিবেন?

ইউরোপের এই দেশটিকে উচ্চশিক্ষার জন্য বেছে নেওয়ার অনেকগুলো কারন রয়েছে। জার্মানি ইউরোপের একটি  শিল্পোন্নত দেশ। তাদের নীতিবাক্য হচ্ছে- ঐক্য এবং ন্যায়বিচার এবং মুক্তি। ১৬টি রাজ্য নিয়ে গঠিত এই দেশটি। জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার যতগুলো কারন রয়েছে তার মধ্যে কিছু কারন তুলে ধরার চেষ্টা করব।

  • টিউশন ফি নেই
  • বিশ্বমানের পড়াশোনা
  • স্কলারশীপের সূযোগ
  • পার্ট টাইম জবের সুযোগ
  • স্থায়ী হবার সুযোগ
  • উন্নত জীবনব্যাবস্থা
  • স্পাউস নেওয়ার সূযোগ

আবেদন করতে কি কি যোগ্যতা থাকা চাই!

একটি আর্টিকেল পড়ে আমি খুবই বিস্মিত হয়েছিলাম! যেখানে বলা হয়েছিল বাংলাদেশের নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করতে হবে। যা কোনভাবেই ঠিক নয়। বাংলাদেশের ৯৮% বিশ্ববিদ্যালয় জার্মানিতে স্বীকৃত। যদি আপনারা জানতে চান যে, কোন কোন ইউনিভার্সিটি জার্মানিতে স্বীকৃত। তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে পারেন। ইনশা-আল্লাহ আমরা লিখব।

আপনি বাংলাদেশের যেকোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করলেই হবে। এবং আপনার রেজাল্ট জার্মান স্কেলে ২.৫ এর কম হওয়া ভাল।

ব্যাচেলরের ক্ষেত্রে যে যে ডকুমেন্ট লাগেঃ 

পাসপোর্ট, এসএসসি মার্কশীট, এসএসসি সার্টিফিকেট, এইচএসসি / ডিপ্লোমা সকল মার্কশীট, এইচএসসি / ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট,  ইউনিভার্সিটির ১ বছরের সকল মার্কশীট, আইএলটিএস (IELTS) স্কোর,  জার্মান ভাষা B1/B2 ( জার্মান কোর্সের ক্ষেত্রে), মোটিভেশন লেটার, রিকোমেন্ডেশন লেটার (কিছু কিছু কোর্সের ক্ষেত্রে),  সিভি ইত্যাদি…

মাস্টার্সের ক্ষেত্রে যে যে ডকুমেন্ট লাগেঃ

  • পাসপোর্ট
  • এসএসসি মার্কশীট
  • এসএসসি সার্টিফিকেট
  • এইচএসসি / ডিপ্লোমা সকল মার্কশীট
  • এইচএসসি / ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট
  • ব্যাচেলরের মার্কশীট
  • ব্যাচেলরের সার্টিফিকেট
  • আইএলটিএস (IELTS) স্কোর
  • জার্মান ভাষা B1/B2 ( জার্মান কোর্সের ক্ষেত্রে)
  • মোটিভেশন লেটার
  • রিকোমেন্ডেশন লেটার (কিছু কিছু কোর্সের ক্ষেত্রে)
  • সিভি ইত্যাদি…

জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার জন্য অনেকগুলো বিষয় বা কোর্স রয়েছে। আপনি সায়েন্স, আর্টস, কিংবা কমার্স যেই বিষয়েই পড়তে চান না কেন, কোন না কোন বিষয় ঠিকই খুঁজে পাবেন।

➧ Agriculture, Forestry and Nutritional Science

➧ Art and Art Theology

➧ Engineering

➧ Languages and Cultural studies

➧ Law, Economics and Social science

➧ Mathematics, Natural Science

➧ Medicine

➧ Veterinary Medicine

➧ Sport

এগুলোর আন্ডারে অনেক কোর্স রয়েছে। এই কোর্সগুলির বেশিরভাগই ইংরেজিতে। তবে ব্যাচলেরে ক্ষেত্রে ইংরেজিতে খুব বেশি কোর্স নেই মাস্টার্সের তুলনায়। তাই সিনিয়ররা সাজেস্ট করে থাকেন যে মাস্টার্সের জন্য জার্মানিতে পড়তে আসার জন্য। সবগুলি কোর্স দেখতে- https://www2.daad.de/deutschland/studienangebote/international-programmes/en/

আবেদনের সময়সীমাঃ

সাধারনত বছরে দুইটি সেমিস্টার হয়ে থাকে। সামার এবং উইন্টার সেমিস্টার। তবে সবচেয়ে বেশি কোর্স অফার করে উইন্টার সেমিস্টারে। সাধারনত এপ্রিল থেকে জুলাইয়ের ১৫ তারিখ অবধি সময় থাকে উইন্টারে আবেদনের ক্ষেত্রে। যার ক্লাস শুরু হয় অক্টোবরে। উইন্টারের ক্ষেত্রে নভেম্বর থেকে জানুয়ারির পর্যন্ত সময় থাকে। কিছু ইউনিভার্সিটির আবেদনের সময়ের ব্যাবধান রয়েছে। এছাড়া বেশিরভাগ একই। প্রতিটি কোর্সের সাথে অবেদনের সময়সীমা বলা থাকে।

ভিসা আবেদনঃ

যদি আপনি কোন ইউনিভার্সিটি থেকে অফার লেটার পেয়ে থাকেন তবে আপনাকে এখন ভিসার জন্য এপ্লিকেশন করতে হবে। ভিসা আবেদনের জন্য কিছু ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হয়ে থাকে।

  • এপয়েন্টমেন্ট নেওয়া
  • ডর্ম / বাসার জন্য এপ্লাই করা
  • স্টুডেন্ট ফাইল এবং ব্লক একাউন্ট খোলা
  • হেলথ ইন্সুরেন্স করা ইত্যাদি …

পার্ট টাইম জবঃ

ইন্টারন্যাশনাল ছাত্রছাত্রীরা সাধারনত বছরে ১২০ দিন ফুল টাইম অথবা ২৮০ দিন হাফ টাইম কাজের সুযোগ পায়। সপ্তাহে ২০ ঘন্টা কাজ করতে পারে। জার্মানিতে ন্যূনতম বেতন প্রতি ঘন্টায় ৯.৩৫ ইউরো। যা আজকের বাজার মুল্যে প্রায় ৯৩৫ টাকা। সুতরাং যে কেউ পার্ট টাইম জব করে জার্মানিতে চলতে পারে। তবে চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে জার্মান ভাষা জানাটা জরুরি। বড় বড় শহরগুলোতে ইংরেজি দিয়েও জব পাওয়া যায়। তবে জার্মান বেসিক জানা থাকলে সহজেই জব পেয়ে যাবেন।

স্থায়ী হবার সুযোগঃ

দেশটিতে স্থায়ী হবার সুযোগ রয়েছে। নরমালি ৫ বছর বৈধ ভাবে বাস করলেই পি আর এর জন্য আবেদন করা যায়। তবে সেক্ষেত্রে আপনাকে আপনি যেই বিষয়ে পড়াশোনা করেছেন,সেই রিলেটেড একটা ফুল টাইম চাকরি পেতে হবে।

লিখেছেন : নাজমুল হাসান

আমার আরও লেখাসমূহ…

বাড়িতেই আইএলটিএস এর প্রস্তুতি কিভাবে নিবেন

আত্মউন্নয়নের জন্য নিজেকে সময় দিন

জার্মানিতে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশোনা

জার্মানির সেরা ১০ শহরের তালিকা

সফট স্কিল কি? সফট স্কিলের প্রয়োজনীয়তা

জার্মান ভাষা কোথায় শিখবেন? জার্মান ভাষার হাতেখড়ি 

জার্মানিতে পড়তে কি কি যোগ্যতা লাগে?

জার্মানির বার্লিনে কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে?

জার্মানিতে উচ্চশিক্ষা সম্পর্কিত যত প্রশ্ন (পার্ট ১)

জার্মানির সেরা ১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা

Subscribe For Latest Updates!

Get higher-study abroad, visa & migration-related latest updates from eGal!

Invalid email address
We promise not to spam you. You can unsubscribe at any time.

Nazmul Hasan

Assalamu Alaikum. This is Nazmul Hasan. I am from Bangladesh. I am Civil Engineering Student. I love to share information about higher studies and immigrants. Because many students fail to fulfill their dream of higher education only due to a lack of information

6 thoughts on “জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার বিস্তারিত সকল খুঁটিনাটি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *