আউসবিল্ডুং নিয়ে যত প্রশ্নঃ এইচএসসি’র পর জার্মানি

জার্মানি যাওয়ার যতগুলো মাধ্যম রয়েছে আউসবিল্ডুং তার মধ্যে একটি। তবে যথযথ তথ্যের অভাবে বেশিরভাগ মানুষই জানেনা আউসবিল্ডুংটা আসলে কি। আউসবিল্ডুং কাদের জন্য, কেনই বা আপনি আউসবিল্ডুং করবেন, আউসবিল্ডুং করতে কি কি যোগ্যতা দক্ষতা থাকা লাগে সেই সকল প্রশ্নের উত্তর থাকবে আজকের আর্টিকেলে।আপনার কি ব্যাচেলর, বা মাস্টার্সে পড়ার ইচ্ছা নাই কিন্তু আপনি যেকোনভাবে জার্মানি যেতে চান? ভাষা শিখে জার্মানি যাব তবুও আইএলটিএস করব না! যদি আপনি তাদের মধ্যে একজন হয়ে থাকে তবে আজকের আর্টিকেলটি শুধুই আপনার জন্য। আউসবিল্ডুং নিয়ে যত প্রশ্ন রয়েছে আজকে বিস্তারিত জানানোর চেষ্টা করব।

আউসবিল্ডুং কি?

ausbildung

আউসবিল্ডুংটা আসলে কর্মমুখী শিক্ষা। আমরা যেটাকে সাধারনত কারিগরি শিক্ষা হিসেবে জানি বা চিনি। আমি যদি উদাহরণের মাধ্যমে বোঝানের চেষ্টা করি তাহলে বিষয়টি সহজ হবে। যেমন ধরেন, কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রে আমরা বিভিন্ন মেয়াদের কোর্স করে থাকি বিভিন্ন বিষয়ের উপর। এছাড়াও বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানেও বিভিন্ন বিষয়ের উপর কোর্স করে থাকি যেমন ড্রাইভিং, ইলেক্ট্রিক্যাল, রেফ্রিজেরেটর, ড্রেস মেকিং, প্লাম্বিং, রড বাইন্ডিং, গ্রাফিক ডিজাইন এছাড়াও আরও অনেক কোর্স রয়েছে। নির্দিষ্ট মেয়াদে নির্দিষ্ট কোর্স করার জন্য আমাদের মাসিক ভিত্তিতে একটা স্টাইপেন বা ভিত্তি দেওয়া হয়ে থাকে। যারা এজাতীয় কোর্স করেছেন তারা জানেন যে, সেখানে একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি হাতে কলমেও শিখায়।

আমি যদি এক কথায় বলি আউসবিল্ডুং কি সেক্ষেত্রে, আউসবিল্ডুং হচ্ছে কারিগরি শিক্ষা, যেখানে আপনি একটি প্রতিষ্ঠানে নির্দিষ্ট কোর্সে, নির্দিষ্ট মেয়াদে পড়াশোনা করবেন। এই পড়াশোনার পাশাপাশি আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমানে স্যালারি বা স্টাইপেন দেওয়া হবে। তবে এক্ষেত্রে মনে রাখার বিষয় হচ্ছে এইখানে ৫০% যদি হয় একাডেমিক শিক্ষা আর ৫০% হবে কারিগরি শিক্ষা বা বাস্তবিক শিক্ষা। যেখানে কোন একটি প্রতিষ্ঠানে আপনাকে নির্দিষ্ট কাজ শিখানো হবে।

একাডেমিক পড়াশোনা বলতে, ধরেন আপনি সাইকেল কিভাবে চালাতে হয় তা বইয়ের মাধ্যমে শিখলেন এবং সেই ফর্মুলা অনুসরণ করে বাস্তবেও সাইকেল চালানো আয়ত্ত করলেন। বাস্তবে সাইকেল চালানো শিখার আগে বইয়ের মাধ্যমে যেই শিক্ষাটা গ্রহণ করলেন সেটাকেই একাডেমিক শিক্ষা।

আউসবিল্ডুং কয় ধরনের হয়ে থাকে?

জার্মানিতে আউসবিল্ডুং সাধারনত ২ ধরনের হয়ে থাকে।

  1. Dual (duale) 
  2.  Educational (schulische)

আমি যদি বিষয়টি সহজ ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করি তবে Dual (duale) আউসবিল্ডুং হচ্ছে প্রফেশনাল টেকনিক্যাল ট্রেনিং। যেখানে আপনাকে সপ্তাহে ৩/৪ দিন ক্লাস করা লাগবে। সপ্তাহে যদি আপনার ক্লাস ৪ দিন হয়, সেক্ষেত্রে ২ দিন ক্লাস আর ২ দিন কাজ শিখানো হবে। যদিও কোম্পানি ভেদে ভিন্ন হয়ে থাকে। তবে আনেক কোম্পানি আবার ২/৩ মাস ক্লাস করায় আবার ২/৩ মাস কাজ শিখিয়ে থাকে। সেটা নির্ভর করবে কোর্স এবং কোম্পানির উপর। তবে আরেকটি বিষয় বলে রাখি, আপনাকে যে কোম্পানি নিয়োগ দিবে ঐ কোম্পানি কিছু নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি করে থাকে। যেখানে বিভিন্ন কোর্স রিলেটেড প্রোগ্রাম চালু থাকে, মুলত আপনি সেখানেই আপনার কোর্স রিলেটেড পড়াশোনা করবেন এবং কোম্পানিতে এসে কাজ শিখবেন। Dual (duale) আউসবিল্ডুং করলে কোম্পানিগুলো প্রতি মাসে একটা নির্দিষ্ট পরিমানে ইউরো প্রদান করে থাকে।

 Educational (schulische) হচ্ছে আমাদের দেশে কারিগরি শিক্ষার মত। যেখানে আপনাকে একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি আপনার বিষয় রিলেটেড বিভিন্ন কাজ শিখানো হবে। তবে এক্ষেত্রে কোন প্রকার বৃত্তি প্রদান করা হয়না। আপনি এটাকে বাংলাদেশের ডিপ্লোমা পড়াশোনার সাথে তুলনা করতে পারেন।

কাদের জন্য আউসবিল্ডুং (Ausbildung)

রিকোয়ারমেন্ট ঠিক থাকলে যেকেউ আউসবিল্ডুং করতে পারবে। তবে আউসবিল্ডুংটা মুলত তাদের জন্য যারা টেকনিক্যাল বিষয়ে আগ্রহি। আপনার যদি ব্যাচেলর বা মাস্টার্স করতে কোন প্রকার আগ্রহ বা যোগ্যতা না থাকে তাহলে আপনি আউসবিল্ডুং করতে পারেন। অনেকেই আছেন যারা ব্যাচেলর বা মাস্টার্স করে চাকরি পাবেন কিনা চিন্তায় পড়েন যান, তারা চাইলেই আউসবিল্ডুং করতে পারেন। কেননা আউসবিল্ডুং হচ্ছে কারিগরি শিক্ষা, যেখানে চাকরি না পাওয়ার সম্ভবনা খুবই কম।

কি কি বিষয়ে আউসবিল্ডুং করা যাবে?

বলা হয়ে থাকে যে, জার্মানিতে যত ধরনের পেশা আছে প্রায় সকল ধরনের আউসবিল্ডুং রয়েছে। সুতরাং আপনি যেই বিষয়ে আউসবিল্ডুং করতে চান না কেন কোন না কোন প্রোগ্রাম খুঁজে পাবেন।

টপ পেইড অ্যান্ড টপ ডিমান্ড আউসবিল্ডুং কোনগুলোঃ

  • এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার (Air traffic controller)
  • নার্স (Nurse)
  • শীপ মেকানিক (Ship mechanic)
  • আইটি স্পেশালিষ্ট (IT specialist)
  • ব্যাংক ক্লার্ক (Bank clerk)
  • এয়াক্রাফট মেকানিক (Aircraft mechanic)
  • স্পেশালিষ্ট ইন মেকাট্রনিক্স (Specialist in Mechatronics)
  • ইলেক্ট্রনিক টেকনিশিয়ান (Electronics Technician)

জার্মানিতে আউসবিল্ডুং করতে কী কী যোগ্যতা লাগে?

যেহেতু আউসবিল্ডুংটা হচ্ছে করিগরি প্রশিক্ষন সেহেতু তেমন কোন রিকোয়ারমেন্ট নেই। তবে আপনাকে স্কুল লিভিং সার্টিফিকেট দেখাতে হবে যা আমাদের দেশে এইচএসসি (HSC). সুতরাং আপনি এইসএসসি পাস করলেই জার্মানিতে টেকনিক্যাল টেনিং করার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তার পাশাপাশি আপনাকে জার্মান ভাষাগত দক্ষতার প্রমাণ জার্মান বি১ (B1) লেভেলের সার্টিফিকেট থাকতে হবে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বি২ লাগতে পারে।

সুতরাং প্রধান ২টি রিকোয়রমেন্ট হচ্ছে এইচএসসি পাস হতে হবে এবং বি১ লেভেলের জার্মান জানতে হবে। তবে একটি বিষয় মনে রাখবেন, কে কোন বিষয় থেকে এইসএসসি পাস করেছেন তাতে কোন প্রকার সমস্যা নেই। আপনি সায়েন্স, আর্টস, কমার্স যে গ্রুপ থেকেই পাস করেন না কেন, আপনি আউসবিল্ডুং করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের ক্ষেত্রে কী কী ডকুমেন্টস লাগে?

  • এইচএসসি সার্টিফিকেট
  • জার্মান বি১ সার্টিফিকেট
  • সিভি
  • মোটিভেশন লেটার (কিছু কিছু কোর্সের ক্ষেত্রে)

কোর্স খোঁজা ও অবেদন প্রক্রিয়াঃ

কোর্স খোঁজার জন্য সবচেয়ে পপুলার ওয়েবসাইট হচ্ছে ausbildung.de. তবে দুঃখের বিষয় হচ্ছে এই ওয়েবসাইটটি সম্পূর্ণ জার্মান ভাষায়। আপনাকে কষ্ট করে ট্রান্সলেট ব্যবহার করতে হবে। আউসবিল্ডুং করার জন্য প্রায় ৩৩০টির মত প্রোগ্রাম বা কোর্স রয়েছে। জার্মানিতে যতগুলো পেশা রয়েছে প্রায় সবগুলোতেই আউসবিল্ডুং করার সুযোগ রয়েছে। সুতরাং বিষয় বা প্রোগ্রাম নিয়ে চিন্তার কোন কারণ নেই।

আপনাকে ওয়েবসাইটে গিয়ে নির্দিষ্ট প্রোগ্রাম এবং নির্দিষ্ট কোম্পানি বাছাই করতে হবে। কোর্সের বিস্তারিত তথ্যের পাশাপাশি কোর্সের অবেদনের বিস্তারিত বলা থকবে। তারপর অ্যাপ্লিকেশন স্টার্ট বাটনে ক্লিক করে বিভিন্ন ধাপ অনুসরণ করতে হবে এবং সকল প্রকার ডকুমেন্টস আপলোড করতে হবে। এইভাবে অ্যাপ্লিকেশন প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। কিছু কিছু প্রোগ্রাম বা বিষয়ের ক্ষেত্রে স্কাইপ ইন্টারভিউ নিয়ে থাকে।

টেকনিক্যাল ট্রেনিং করার জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোন সময়সীমা নেই। তবে সাধারনত সেপ্টেম্বর মাসে ক্লাস শুরু হয়ে থাকে কিছু কিছু অক্টোবর মাসে শুরু হয়। তবে কোম্পানি ও কোর্স ভেদে শুরুর তারিখ ভিন্ন হতে পারে। সুতরাং তার আগেই আপনাকে আবেদন করতে হবে। তাই সবার উচিত হবে যত দ্রুত সম্ভব আবেদন করা।

কত টাকা স্যালারি বা বৃত্তি প্রদান করে থাকে?

আউসবিল্ডুং করার জন্য বেশ অনেকগুলো বিষয় বা প্রোগ্রাম রয়েছে। প্রত্যেকটা কোর্স বা প্রোগ্রামের স্যালারি বা বৃত্তির পরিমান ভিন্ন। তবে প্রতি মাসে সাধারনত ৫০০ থেকে ১২০০ ইউরোর মত প্রদান করে থাকে। তবে তা প্রতি বছর বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। নিমোক্ত ছবি থেকে কিছুটা ধারনা পাবেন আশা করছি।

জার্মানিতে ভোকেশনাল ট্রেনিং বা আউসবিল্ডুং সাধারনত ২.৫ থেকে ৪ বছরের হয়ে থাকে। তবে বেশিরভাগ কোর্সেই তা ২.৫ অথবা ৩ বছরের হয়ে থাকে।

আউসবিল্ডুং কোর্স শেষে স্যালারি কত হয়ে থাকেঃ

অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগতে পারে আউসবিল্ডুং করার পর আমার কত টাকা স্যালারি হবে। বিষয়টি নির্ভর করে আপনি কোন বিষয়ের উপর কোর্স করেছেন তার উপর। তবে সাধারনত ২,০০০ ইউরো থেকে ৩,৫০০ ইউরো পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে আপনার বিষয় ও প্রতিষ্ঠান ভেদে ভিন্ন হতে পারে। তবে সাধারনত ২,০০০ থেকে ২,২০০ ইউরো থেকে কম হয়না। যা অভিজ্ঞতার আলোকে প্রতি বছর বৃদ্ধি পায়।

ভিসা আবেদনের ক্ষেত্রে যেসকল ডকুমেন্টস লাগবে

আপনি যদি আউসবিল্ডুং করার জন্য কোন একটি প্রতিষ্ঠান থেকে অফার লেটার পেয়ে থাকেন, তবে এখন সময় হচ্ছে ভিসার জন্য আবেদন করা। ভিসা আবেদনের জন্য আপনার কিছু ডকুমেন্টসের প্রয়োজন হবে।

  • পাসপোর্ট
  • এইচএসসি (HSC) সার্টিফিকেট
  • জার্মান বি২ লেভেল সার্টিফিকেট
  • হেলথ ইন্সুরেন্স
  • থাকার ব্যবস্থার প্রমানপত্র (Accommodation)
  • ব্লক একাউন্ট
  • অফার লেটার (কোম্পানির চুক্তিপত্র)

সবকিছু ঠিক থাকলে আউসবিল্ডুং করতে আর কোন বাঁধা থাকবে না। আপনার এই বিষয়ে কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

ভিডিওর মাধ্যমে Ausbildung সম্পর্কে জানতে-

Ausbildung

জার্মানিতে আউসবিল্ডুং খোঁজার জন্য জনপ্রিয় ২টি ওয়েবসাইটঃ

১- ওয়েবসাইট

২- ওয়েবসাইট

যেকোন প্রকার জিজ্ঞাসা করতে পারেন আমাদের গ্রুপে

লিখেছেনঃ নাজমুল হাসান

আরও পড়ুনসফট স্কিল কি: পেশাগত জীবনে সফট স্কিলের প্রয়োজনীয়তা

Subscribe For Latest Updates!

Get higher-study abroad, visa & migration-related latest updates from eGal!

Invalid email address
We promise not to spam you. You can unsubscribe at any time.

Nazmul Hasan

Assalamu Alaikum. This is Nazmul Hasan. I am from Bangladesh. I am Civil Engineering Student. I love to share information about higher studies and immigrants. Because many students fail to fulfill their dream of higher education only due to a lack of information

13 thoughts on “আউসবিল্ডুং নিয়ে যত প্রশ্নঃ এইচএসসি’র পর জার্মানি

  • 01/06/2021 at 1:19 AM
    Permalink

    visa pawar possibility kemon..? shunechi ausbuildung a naki bd theke visa dey na embassy!

    Reply
    • 02/06/2021 at 8:33 PM
      Permalink

      Sob kicu thik thakle visa obossoi paben. Bd theke ausbildung er jonno visa deyna, eta thik noy.

      Reply
  • Pingback: জার্মানিতে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশোনা : দরকারি সব তথ্য | eGal

  • 02/06/2021 at 7:03 PM
    Permalink

    আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ! ভাইজান! আমি ২০১৩ HSC আর ২০২০ এ ঢাকা কলেজ থেকে ইসলামিক স্টাডিজ এ অনার্স করেছি। আচ্ছা আমি কি আউসবিল্ডুং এর জন্য এলিজিবল? এখানে স্টাডি-গ্যাপ বা বয়সসীমার কোন শর্ত আছ? একটু জানাবেন ভাইজান। প্লিজ…!

    Reply
    • 02/06/2021 at 8:31 PM
      Permalink

      জি আপনি এলিজিবল। কিছু কিছু কোর্সের ক্ষেত্রে বয়সের কোন বাঁধা নেই। তবে কিছু কিছু কোর্সের ক্ষেত্রে ২৫ বছরের নিচে হওয়া লাগে। তবে এইটা কোর্সে উল্লেখ থাকবে।

      Reply
      • 03/06/2021 at 7:17 PM
        Permalink

        অসংখ্য ধন্যবাদ

        Reply
        • 15/06/2021 at 8:14 PM
          Permalink

          Assalamuwalaikum… Assa vaia study gap hole hobe. Jodi b1 complete kori

          Reply
  • 03/06/2021 at 12:39 AM
    Permalink

    ভাইয়া,ভিসার জন্য এপ্লাই করার জন্য B2 সার্টিফিকেট লাগবে কেন? অ্যাপ্লিকেশনের জন্য তো B1 এর কথা বলছেন,তাহলে কোনটা সঠিক?একটু জানাবেন প্লিজ

    Reply
    • 03/06/2021 at 8:38 AM
      Permalink

      জি। বি১ হলেই হবে। তবে কোর্সের রিকোয়ারমেন্ট যদি হয় বি২ সেক্ষেত্রে বি২ সার্টিফিকেট লাগবে। আরোও কিছু জানার থাকলে দয়া করে কমেন্ট করুন।

      Reply
  • 06/06/2021 at 10:56 AM
    Permalink

    Informative article.Thank you for discussion about this topic.😊

    Reply
    • 06/06/2021 at 3:06 PM
      Permalink

      Thanks a lot. Please stay connected with us.

      Reply
    • 18/06/2021 at 10:43 PM
      Permalink

      আমি আউসবিল্ডুং এর মাধ্যমে জার্মান ভাষা শিখে জার্মান যেতে চাই।তার জন্য আমার কি কি যোগ্যতা লাগবে?

      Reply
  • 18/06/2021 at 10:39 PM
    Permalink

    Ami german language course complete kore.ausbildung er maddhome Germany jete chai?

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *