জার্মানির কোলোন গেম ল্যাবে বিনামূল্যে ব্যাচেলর এবং মাস্টার্সের সুযোগ

কোলোন গেম ল্যাব (সিজিএল) – ২০১০ সালে প্রতিষ্ঠিত, গত কয়েক বছর ধরে গেম ভিত্তিক বিভিন্ন ব্যাচেলর এবং মাস্টার্স কোর্স রয়েছে এবং এটি জার্মানির গেম ডেভলপমেন্টের ক্ষেত্রে সর্বাধিক খ্যাতিমান শিক্ষাগত একটি ল্যাব। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিজ্ঞানী এবং শিল্পী সহ দশ অধ্যাপকের একটি বর্ধিত দল সহ,
(মলহিমের শানজেনস্ট্রাসেতে) নতুন ক্যাম্পাসে শীতকালে (winter) ২০১৫ সালে খোলা হয়েছিল এসসি ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ডস এবং পদ্ধতিগত বিবরণ। পিসি গেমস ছাড়াও, এআর / ভিআর (AR/VR) গবেষণা, এবং স্মার্টফোন অ্যাপ্লিকেশন, সিএইচএল, টিএইচ কোলোনের সাংস্কৃতিক স্টাডিজ অনুষদের একটি ইনস্টিটিউট, এমনকি ফিল্ম এবং টিভি অনুষদেরও কাজ করে।

কোলোন গেম ল্যাবে ইংরেজিতে অফার করা ব্যাচেলর কোর্স হল :
(i) Digital Games (Bachelor of Arts)

কোলোন গেম ল্যাবে ইংরেজিতে অফার করা মাস্টার্স কোর্স গুলাে হল :
(i)Digital Games (Master of Arts)
(ii)Game Development and Research (Master of Arts)
(iii)Integrated Design (Master of Arts)

TH Köln বা University of Applied Science Cologne বিশ্ববিদ্যালয়ের Cologne Game Lab -এ আবেদন‌ করতে হলে ইউনি-এসিস্টের মাধ্যমে আবেদনের পাশাপাশি ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন করতে হবে। দুইটাই করতে হবে। ইউনি-এসিস্টে আবেদন করে, যদি ওয়েবসাইটে আবেদন না করেন, অথবা vice versa – তাহলে আবেদন গণ্য হবে না।

এইখানের পড়াশোনা খুবই বিশেষায়িত। সুতরাং, কিছু টেকনিক্যাল, কমিউনিকেশন্যাল, এবং গেম ও মিডিয়া সম্পর্কিত ধারণা থাকা জরুরি। এখানে পড়াশোনা করতে সাধারণত দুইটা ধাপ পার হতে হয় – applying with completed task and portfolio এবং oral interview. প্রথমটাতে পাস‌ করলে পরেরটার জন্য ডাকা হয়। সুতরাং, এটা aptitude test.

ধাপ ১: যদি নিচের লিংকে যান তাহলে দেখতে পারবেন এ বছরের কোন কোর্সের জন্য টাস্ক কোনটা। মোটামুটি বিস্তারিত বলে দেওয়া আছে (পোর্টফোলিও-র ব্যাপারে পরে বলছি) – https://colognegamelab.de/study-programs/apply/

ধাপ ২: প্রথম ধাপ পার হলে তারা আপনাকে ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকবে। আপনি এখানে থাকলে হয়তো তারা সরাসরি ইনস্টিটিউটে আসতে বলবে। দেশে থাকলে স্কাইপ অথবা জুমের মাধ্যমে ইন্টারভিউ নিবে। এ ব্যাপারে আপনি শুধু মেইলে করে বলবেন আপনি কিভাবে দিতে চান ইন্টারভিউ। সাধারণত, ইন্টারভিউতে প্রফেসররা চেষ্টা করবে আপনার মিডিয়া কিংবা গেম সম্পর্কিত ধারণা কেমন, টাস্কটি আপনি‌‌ নিজে করেছেন অথবা ধার করেছেন কিনা, আপনার ইংরেজি জ্ঞান যথেষ্ট কিনা সেটা যাচাই করবে।

পোর্টফোলিও: BA and MA Digital Games- এই কোর্স দুটিতে তিনটি বিশেষায়িত কোর্স অফার করে – গেম আর্টস, গেম প্রোগ্রামিং, এবং গেম ডিজাইন। আপনি যেটাতে আবেদন করতে চান আপনার পোর্টফোলিও সেইটার উপর বেস করে তৈরি করতে হবে। মনে রাখা জরুরী একেকটা পোর্টফোলিও যাচাই করতে সর্বোচ্চ ১০ মিনিট সময় নেওয়া হয়। সুতরাং, পোর্টফোলিও হতে হবে সংক্ষিপ্ত, বহুমুখী, এবং আপনার পছন্দের বিশেষায়িত কোর্সের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। যেমন, গেম ডিজাইনে আবেদন করলে যদি আপনি আপনার গেমের কনসেপ্ট, মেকানিকস, কিংবা রুলস ইত্যাদি বর্ণনা না‌ করে যদি একগাদা আর্টওয়ার্ক কিংবা প্রোগ্রামিং নিয়ে কথা বলেন তাহলে হবে না। একই কথা আর্টিস্ট এবং প্রোগ্রামারদের জন্য প্রযোজ্য। এবং যতটা সম্ভব পোর্টফোলিও গেম কিংবা ইন্টারেক্টিভ মিডিয়া সংক্রান্ত হলে ভালো হয়।

এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে Digital Games (Bachelor of Arts) এর উপর গ্রাজুয়েশন পাস করা রাকিবুল হাসান তুর ভাইয়ের নিজস্য কিছু অভিজ্ঞতাগুলো হলো :
উপরের ধাপগুলো কঠিন মনে হতে পারে তাই উৎসাহের জন্য Cologne Game Lab-এর জীবন সম্পর্কে কিছু ধারণা দেই। CGL যদিও TH Köln এর একটা অংশ, কিন্তু ইনস্টিটিউটের নিজস্ব সংস্কৃতি অন্যরকম। এখানকার শিক্ষার্থী থেকে শিক্ষক সবাই খুবই খোলামেলা মনের মানুষ এবং অনেক স্বতঃস্ফুর্ত। যেহেতু, ইনস্টিটিউটের অর্ধেকের বেশি সদস্য বিভিন্ন দেশ‌ থেকে এসেছে সেহেতু এখানে অনেক দেশের অনেক রকমের মানুষের সাথে মেশার সুযোগ আছে। তাছাড়া, এখানে কোন হায়রার্কি নেই বললেই চলে। আমরা প্রফেসরদের সাথে মুভি দেখি, গেম খেলি, ডিবেট করি। কে মাস্টার্স আর কে ব্যাচেলর, কে সিনিয়র বা কে জুনিয়র ইত্যাদি দেখার সময় কারো নেই। সবাই সবার কাছ থেকে শিখতে চাই। আর পড়ালেখার পাশাপাশি অনেক কিছুই করার সুযোগ আছে। আমাদের বড় একটা কমন‌ রুম আছে যেখানে পিএস ৪, নিনটেন্ডো সুইচ ও অন্যান্য কনসোল আছে। যে কেউ চাইলে একটা গেম লাইব্রেরি থেকে ধার করে এনে এখানে খেলতে পারে। মোটামুটি সব পিসিতে ২০০+ গেম ইন্সটল করা যেগুলো প্রতি বছর শিক্ষার্থীদের সাজেশন অনুযায়ী আপডেট করা হয়। এছাড়া অনলাইনে বা ল্যানে টুর্নামেন্টও তো হয়ই, বোর্ড গেম নাইটও হয়। প্রতি বৃহস্পতিবার ডাচ হাওয়ার থাকে যেখানে সবাই মিলে আড্ডা‌ দেয় আমাদের টেরাসে। আবার, আমাদের কিচেন আছে, এখানে যে কেউ রান্নাবান্না করতে পারে (অবশ্যই কিছু পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার নিয়ম আছে)। এছাড়া, হাই-ফাই কম্পিউটার বা‌ ম্যাক সবই আছে। আমরা মাঝে মধ্যে আমাদের নিজস্ব সিনেপ্লেক্সে মুভি দেখি সবাই মিলে। মোদ্দাকথায়, এখানকার পড়াশোনা বেশ মজার।

Subscribe For Latest Updates!

Get higher-study abroad, visa & migration-related latest updates from eGal!

Invalid email address
We promise not to spam you. You can unsubscribe at any time.

Leave a Reply

Your email address will not be published.