উচ্চশিক্ষায় মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিংঃ পর্ব-১

ধরুন, আপনি কেনাকাটার জন্য পরিবারের সবাইকে নিয়ে উত্তরার জমজম টাওয়ারের উদ্দ্যেশ্যে রওনা দিলেন। শপিং মলের সামনে আসতেই খেয়াল করলেন সামনের দরজাটা স্বয়ংক্রিয়ভাবে খুলে গেলো। আবার, ভেতরে ঢোকার পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধও হয়ে গেলো। কিংবা, আজকাল ঘরে বসেই কিন্তু আপনি আপনার ঘরের এয়ারকন্ডিশনার, লাইট – ফ্যান অন অফ করতে পারছেন। কিংবা, সামান্য একটা মোবাইল এপ্লিকেশনের মাধ্যমেই দেখতে পারছেন, আপনার প্রিয় গাড়িটার অবস্থান এখন কোথায়। শুধু তো এই না, ভেবেছেন কখনো, নাসা-ইএসএ-ইস্রো আজ পৃথিবীতে বসেই মঙ্গল গ্রহ, এস্টোরয়েড বেল্ট, জুপিটার, নেপচুনের বলয়ে কিভাবে স্যাটেলাইট স্থাপন করে চলেছে? কিভাবে মঙ্গল-চাঁদের পৃষ্ঠে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্ত্বা সম্পন্ন সব রোভার-রোবট পাঠাচ্ছে? কিভাবে কম্পিউটারের এক চাপে বিশাল রকেট উড়ে চলছে, কিভাবে ড্রোন বিমান বা জাহাজগুলি চলছে? কিংবা বাসা বাড়িতে আগুন লাগলে কিভাবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এলার্ম বেজে উঠছে, ফায়ার সার্ভিসের কাছে তথ্য চলে যাচ্ছে? – আসলে এগুলো সবই হলো মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিভিন্ন এপ্লিকেশন, যেসব টেকনোলজির সাথে আমরা প্রতিনিয়ত অজান্তেই জড়িয়ে পড়ছি, আর এগুলোই আমাদের জীবনকে করে তুলছে সহজ থেকে আরও সহজতর। তাই আজকের আলোচনা, ইঞ্জিনিয়ারিং জগতের সব থেকে ইনোভেটিভ আর সব থেকে এডভান্সড সেক্টর, মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (Mechatronics Engineering) সম্পর্কে।

 

ইতিহাস (Mechatronics Engineering)

সময়টা ১৯৬৯। তৎকালীন জাপানের ইয়াস্কাওয়া ইলেকট্রিক কর্পোরেশন (Yaskawa Electric Corporation) তখন বিভিন্ন ধরণের হেভি ইন্ডাস্ট্রিয়াল ম্যাটেরিয়াল তৈরি করা শুরু করেছে। সেখানে চাকরি করতেন যন্ত্র প্রকৌশলী তেতসুরো মরি (Tetsuro Mori)। তিনিই সেসময় পুরো বিশ্বের সামনে মেকাট্রনিক্স জিনিসটাকে তুলে আনেন। যেটার বৈধতা দেওয়া হয় ১৯৭২ সালে। ইয়াস্কাওয়া ইলেকট্রিক কর্পোরেশন (Yaskawa Electric Corporation) প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯১৫ সালে। বর্তমানে কোম্পানিটি বিভিন্ন মেকাট্রনিক্স এপ্লিকেশনে ব্যবহৃত ইকুইপমেন্ট তৈরি করে থাকে। যেমনঃ সার্ভো ড্রাইভ, মেশিন কন্ট্রোলার, ইন্ডাস্ট্রিয়াল রোবট, পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশান ইকুইপমেন্ট সহ ইত্যাদি।

 

কোর্স স্ট্রাকচার – Course Structure

মেকাট্রনিক্স শব্দটা এসেছে মূলত দুটি শব্দ থেকে। Mechanics এর ‘Mecha’ এবং Electronics এর ‘Tronics’ নিয়ে গঠিত হয় ‘Mechatronics’। এর নাম থেকেই বোঝা যায়, এটা একটা হাইব্রিড ইঞ্জিনিয়ারিং, যার বাংলা অর্থ ‘তড়িৎযন্ত্র প্রকৌশল’। মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বেশ কয়েকটি কোর-ইঞ্জিনিয়ারিং সহ অনেকগুলি সাব-ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে তৈরি। একজন মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং স্টুডেন্ট সাধারণত নিচের ইঞ্জিনিয়ারিং ফিল্ডগুলির উপর একসাথে পড়াশোনা করে থাকে;

  • মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং (Mechanical Engineering)
  • ম্যাটেরিয়াল সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (Material Science and Engineering)
  • ইলেকট্রিকাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (EEE)
  • কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং – দুইটাই সফটওয়্যার এন্ড হার্ডওয়ার (CSE – Software and Hardware)
  • এরোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং (Aerospace Engineering)
  • সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিং (System Engineering)
  • কন্ট্রোল ইঞ্জিনিয়ারিং (Control Engineering)
  • অপটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (Optical Engineering)
  • টেলেকমিউনিকেশন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (Telecommunications Engineering)
  • বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং (Bio-Medical Engineering)
  • অটোমোবাইল / অটোমোটিভ ইঞ্জিনিয়ারিং (Automobile / Automotive Engineering)
  • এম্বেডেড ইঞ্জিনিয়ারিং (Embeded Engineering)

 

এপ্লিকেশন – Application

মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং একটা মাল্টি ডিসিপ্লিনারি ইঞ্জিনিয়ারিং ফিল্ড হওয়ায় এর  এপ্লিকেশন অনেক। এপ্লিকেশন বলতে বোঝায়, আসলে এই জিনিসিটা কোথায় কোথায় এবং কোন জায়গায় ব্যবহার হয়ে থাকে। বা সহজ করে বলতে, একজন মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার সাধারণত চাকরিতে কোন কোন পোস্টে চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবে, সেটাই মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর এপ্লিকেশন। যেমনঃ

  • মেশিন ভিশন (Machine Vision)
  • অটোমেশন টেকনোলজি (Automation Technology)
  • রোবটিক্স কন্ট্রোল (Robotics Control)
  • সার্ভো মেকানিক (Servo Mechanic)
  • সেন্সিং এন্ড কন্ট্রোল (Sensing and Control)
  • অটোমোটিভ ইকুইপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং (Automotive Equipment Manufacturing)
  • ইন্ডাস্ট্রিয়াল ম্যানুফ্যাকচারিং – বাইক, কার, কমার্শিয়াল প্লেন, ডিফেন্স এয়ারক্রাফট (Industrial Manufacturing – Bike, Car, Commercial Aircraft, Defense Aircraft)
  • বিল্ডিং অটোমেশন বা হোম অটোমেশন (Building and Home Automation)
  • সিএনসি মিলিং, সিএনসি ওয়াটারজেট, সিএনসি প্লাজমা কাটার (CNC Milling, CNC Water Jet, CNC Plasma Cutter)
  • ইনটেলিজেন্ট সিস্টেম ডেভেলপার (Intelligent System Developer)
  • ইন্ডাস্ট্রিয়াল ম্যাটেরিয়াল টেস্টার (Industrial Material Tester)
  • কনজুমার প্রোডাক্ট (Consumer Product)
  • মেকা-ইলেক্ট্রিকাল সিস্টেম (Mecha-Electrical System)
  • মেডিকেল ইমেজিং সিস্টেম (Medical Imaging System)
  • স্ট্রাকচুরাল ডায়নামিক সিস্টেম (Structural Dynamic System)
  • ট্রান্সপোর্টেশন এন্ড ভেহিকুলার সিস্টেম (Transportation and Vehicular System)
  • ইলেকট্রিক কার ম্যানুফ্যাকচারিং (Electric Car Manufacturing)
  • অটো ড্রাইভার বা অটো পাইলট ডেভেলপার (Auto Driver or Auto Pilot Developer)
  • রকেট ম্যানুফ্যাকচারিং – থ্রাস্ট / মিসাইল সিস্টেম (Rocket Manufacturing – Thrust / Missile System)
  • ক্যাড ডিজাইন (Computer Aided Design – CAD)
  • প্যাকেজিং (Packaging)
  • মাইক্রোকন্ট্রোলার বা পিএলসি ম্যানুফ্যাকচারার (Microcontroller or PLC Manufacturer)
  • মাইক্রো প্রসেসর ম্যানুফ্যাকচারার (Microprocessor Manufacturer)
  • প্রোগ্রামার – সি, সি++, পাইথন, ম্যাটল্যাব (Programmer – C, C++, Python, MATLab)
  • মেরিন অটোমেশন (Marine Automation)
  • রাডার সিস্টেম (Radar System)
  • সিমুলেটর (Simulator)
  • পাওয়ার স্টেশন ডিস্ট্রিবিউটর (Power Station Distributor)
  • নিউক্লিয়ার গ্রিড ইঞ্জিনিয়ার (Nuclear Grid Engineer)

 

বাংলাদেশে মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর ভবিষ্যৎ

বাংলাদেশে মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর ইমপ্লিমেন্টেশন এবং পড়াশোনা কেবল শুরু হচ্ছে। আর সেটা শুধুমাত্র হাতে গোনা বাংলাদেশের প্রথম সারির ইন্সটিটিউশন গুলিতে। এর মূল কারণ হলো, উপরের যেই এপ্লিকেশন গুলি দেখছেন, সেটার শতভাগ ইমপ্লিমেন্টেশন আগে বাংলাদেশে ছিল না। বরাবর ই গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারিং এবং লোকাল ইলেকট্রিক এপ্লায়েন্স উৎপাদনে ঝুকে ছিল বাংলাদেশের অর্থনীতি।

তবে এখন প্রেক্ষাপট ভিন্ন। বাংলাদেশে ইতোমধ্যে তৈরি হয়েছে ৫৫টি সরকারি ইকোনোমিক জোন এবং ১১ টি বেসরকারি ইকোনোমিক জোন। আরও অনেকগুলির কাজ চলমান রয়েছে। এসব জোনে দেশি-বিদেশী ইনভেস্টমেন্টে গড়ে উঠছে বিভিন্ন পাওয়ার প্ল্যান্ট, ম্যানুফাকচারিং প্ল্যান্টসহ আরও অনেক ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রজেক্ট। সেখানে থাকছে, গাড়ির কারখানা, মোবাইল ফোন কারখানা, ফুড কারখানা, গার্মেন্ট কারখানা, ইলেক্ট্রনিক কারখানা, মিউজিক্যাল ইন্সট্রুমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং কারখানা, প্যাকেজিং কারখানা, সিমেন্ট-রড কারখানাসহ আরও অনেক।

এর বাহিরেও তৈরি হচ্ছে রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, লালমনিরহাটে এয়ারক্রাফট ম্যানুফ্যাকচারিং প্ল্যান্ট, খুলনায় গ্রিন শিপ বিল্ডিং প্ল্যান্ট, আলাদা ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিসহ ইত্যাদি। এর বাহিরে বাংলাদেশের ঔষধশিল্প বিশ্বমানের। এসব ফার্মাসিউটিকাল কোম্পানিতেও চাহিদা প্রতি নিয়ত বেড়েই চলেছে। অর্থাৎ প্রতিবছর বাংলাদেশে প্রায় কয়েক হাজার দক্ষ ইঞ্জিনিয়ার প্রয়োজন, যারা উপরের এপ্লিকেশনগুলোতে পারদর্শী। আর এজন্যই মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারদের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে, কারণ তারা একসাথে মাল্টি ডিসিপ্লিনে পারদর্শী।

বাংলাদেশ মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বা তড়িৎযন্ত্র প্রকৌশল এর যাত্রা শুরু একটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মাধ্যমে। ২০০৬ সালে ঢাকাস্থ World University of Bangladesh (WUB) সর্বপ্রথম বাংলাদেশে Department of Mechatronics Engineering প্রতিষ্ঠা করে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে Rajshahi University of Engineering and Technology (RUET), ২০১৩ সালে সবার আগে এই ডিপার্টমেন্টের যাত্রা শুরু করে। এরপরে ২০১৫ সালে Chittagong University of Engineering and Technology (CUET), ২০১৭ সালে একই সাথে University of Dhaka (DU) এবং Khulna University of Engineering and Technology (KUET) মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর যাত্রা শুরু করে। এর বাহিরে বাংলাদেশের আরেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, German University of Bangladesh (GUB) মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট পরিচালনা শীঘ্রই শুরু করতে যাচ্ছে।

 

একজন ছাত্র বা ছাত্রী তার এইচএসসি শেষ করে বা ডিপ্লোমা শেষ করে, কিংবা অন্য কোন ফিল্ড থেকে কিভাবে মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এ আসতে পারবে এবং কোন কোন যোগ্যতা থাকা লাগবে তা জানাব আলাদা এক পর্বে। আশা করছি ভাল লাগবে এবং বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সহজ পথ প্রদর্শক হবে এই উচ্চশিক্ষার এই পর্বগুলি।

 

পরের পর্বে থাকছে – (জার্মানিতে মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং – পর্ব ২.১)

 

 

References

  1. BEZA Bangladesh. (n.d.). All Zones « BEZA. [online] Available at: https://www.beza.gov.bd/all-zones/ [Accessed 11 Nov. 2020].
  2. Department of Mechatronics Engineering. (n.d.). World University of Bangladesh | At a Glance. [online] Available at: https://mte.wub.edu.bd/main/about_department.
  3. Wikipedia Contributors (2019). Mechatronics. [online] Wikipedia. Available at: https://en.wikipedia.org/wiki/Mechatronics [Accessed 10 Nov. 2020].
  4. www.cuet.ac.bd. (n.d.). Mechatronics and Industrial Engineering | Chittagong University of Engineering and Technology. [online] Available at: https://www.cuet.ac.bd/dept/mie [Accessed 11 Nov. 2020].
  5. www.du.ac.bd. (n.d.). University of Dhaka. [online] Available at: https://www.du.ac.bd/academic/department_item/RME [Accessed 11 Nov. 2020].
  6. www.gub.edu.bd. (n.d.). Bachelor Programs | German University Bangladesh. [online] Available at: https://www.gub.edu.bd/node/8 [Accessed 11 Nov. 2020].
  7. www.kuet.ac.bd. (n.d.). KUET | Khulna University of Engineering & Technology. [online] Available at: http://www.kuet.ac.bd/index.php/welcome/about_kuet [Accessed 11 Nov. 2020].
  8. www.mte.ruet.ac.bd. (n.d.). MTE- Mechatronics Engineering. [online] Available at: https://www.mte.ruet.ac.bd [Accessed 11 Nov. 2020].
  9. www.yaskawa-global.com. (n.d.). Yaskawa global site. [online] Available at: https://www.yaskawa-global.com [Accessed 11 Nov. 2020].

Subscribe For Latest Updates!

Get higher-study abroad, visa & migration-related latest updates from eGal!

Invalid email address
We promise not to spam you. You can unsubscribe at any time.

11 thoughts on “উচ্চশিক্ষায় মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিংঃ পর্ব-১

  • 11/11/2020 at 1:30 PM
    Permalink

    বাংলাদেশে মেকানিকাল বিষয়ে ডিপ্লোমা করে জার্মানিতে কিভাবে bscকরা যাবে সে সম্মন্ধে ধাপে ধাপে বিস্তারিত লেখার অনুরুধ করছি।

    Reply
    • 11/11/2020 at 6:55 PM
      Permalink

      এ বিষয়ে আলাদা একটি ব্লগ সিরিজ সিরিজ করা হবে। সেখানে সব কিছু কয়েক পর্বে আলোচনা করা হবে।

      Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: