সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে আয় করবেন যেভাবে

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আয়, এটাও কি সম্ভব!? এরই মধ্যে হয়তোবা শুনে থাকবেন সোশ্যাল মিডিয়া থেকেও আয় করা যায়। এই প্ল্যাটফর্মটিকে কাজে লাগিয়ে অনেকে আয় করছে। সেটি হতে পারে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, হতে পারে সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট, সোশ্যাল মিডিয়ায় কন্টেন্ট আপলোড ইত্যাদি। তবে আমি আজ আপনাদের যে পদ্ধতিতে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আয় করার কথা বলবো তা শুনে সত্যিই আপনি অবাক হয়ে যাবেন। সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে কীভাবে আয় করা যায় সেই বিষয়টি নিয়ে কথা বলবো আজ।

সোশ্যাল মিডিয়া কী?

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা সোশ্যাল মিডিয়া হচ্ছে এমন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যেগুলো ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা ভার্চুয়ালি একে অপরের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করছি। ম্যাসেজের মাধ্যমে আবেগ, অনুভূতি প্রকাশ করছি। বিভিন্ন পোস্টের মাধ্যমে আমাদের ছবি কিংবা লেখা সবার মাঝে শেয়ার করছি। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে সোশ্যাল মিডিয়া একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। বর্তমান যুগে অনেক সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ফেসবুক, টুইটার, বান্ধব ডটকম, ইন্সটাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ। এছাড়াও আরও অনেক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে।

ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ ইত্যাদি সামাজিক মিডিয়া ব্যবহার করলে সাধারণত কোনো টাকা পান না ইউজাররা। কিন্তু আজকের এই আর্টিকেলে আমি জানাবো বান্ধব ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করে কীভাবে আয় করবেন।

বান্ধব কী? বান্ধব (BandhoB) থেকে কীভাবে আয় করবেন?

Bandhob (বান্ধব) হচ্ছে জার্মানি-ভিত্তিক একটি সোশ্যাল মিডিয়া। উদ্যোক্তাদের মধ্যে একজন বাংলাদেশি হওয়ায় নাম দেওয়া হয় বান্ধব। আপনি এতদিন ফেসবুক বা এ জাতীয় যত ধরনের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করছেন প্রায় সবগুলোই বিদেশিদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। কিন্তু বান্ধবের পেছনে রয়েছেন একজন বাংলাদেশি উদ্যোক্তা। এই প্ল্যাটফর্মটি অ্যাপ এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ব্যবহার করা যাবে।

বান্ধব থেকে আয়ের অনেকগুলো উপায় রয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় হচ্ছে রেফার করে আয়। বর্তমানে প্ল্যাটফর্মটি প্রতিটি সফল রেফারের জন্য ১০টাকা করে দিয়ে থাকে। তবে সেটি পাওয়ার জন্য কিছু শর্তাবলি রয়েছে।

কী কী শর্ত রয়েছে?

  1. কোন প্রকার স্প্যাম করা যাবে না
  2. রিয়েল ইউজার হতে হবে

তবে মজার বিষয় হচ্ছে আপনি শুধুমাত্র প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করলেও আপনার কিছু হলেও আয় হবে। আর সেটি দিয়ে আপনি আপনার পুরো মাসের ইন্টারনেট বিল কিংবা পকেট খরচ চালাতে পারবেন। এখন প্রশ্ন হচ্ছে শুধুমাত্র ব্যবহার করেই কীভাবেই আয় করবেন। ব্যবহার করে আয় করার জন্য প্ল্যাটফর্মটিতে পয়েন্ট সিস্টেম রয়েছে। পয়েন্ট সিস্টেমটি নিম্নে দেখানো হলো।

  • প্রতিটি লাইকের জন্য ১ পয়েন্ট
  • প্রতিটি কমেন্টের জন্য ২ পয়েন্ট
  • প্রতিটি পোস্টের জন্য ৩ পয়েন্ট
  • প্রতিটি ব্লগ পোস্টের জন্য ১০ পয়েন্ট

এখন মনে নিশ্চয়ই প্রশ্ন, কত পয়েন্টে কত টাকা? কোম্পানিটি বর্তমানে প্রতি ২০০০ পয়েন্টের জন্য ১ ইউএস ডলার অথবা বাংলাদেশি টাকায় ৮০ টাকা প্রদান করে থাকে। তবে তা আরও কীভাবে বাড়ানো যায়, সেই বিষয়ে ভাবছে, খুব শিগগিরই এটি বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

এছাড়াও এই সোশ্যাল মিডিয়া সাইটটিতে ব্লগ লিখেও আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। প্রতিটি ইউনিক ব্লগের জন্য ০.৬০ ইউএস ডলার অথবা বাংলাদেশি টাকায় ৫০ টাকা করে দেওয়া হবে। তবে এটি শুধুমাত্র যাদের ব্লগ পাবলিশ হবে তাদেরকে এই টাকা দেওয়া হবে।

ব্লগ বা লেখা পাবলিশ হওয়ার শর্ত কী কী?

  1. আপনার লেখা বা কন্টেন্ট ইউনিক হতে হবে
  2. ন্যূনতম ৩৫০ শব্দের আর্টিকেল হতে হবে
  3. কোন প্রকার কপি কন্টেন্ট লেখা যাবে না
  4. স্প্যামিং করা যাবে না
  5. এসইও (SEO)-ফ্রেন্ডলি কন্টেন্ট হতে হবে

এ সকল কিছু বিবেচনায় রেখে আর্টিকেল লিখলে তবেই আপনার লেখা পাবলিশ করা হবে। আর কেবলমাত্র লেখা পাবলিশ হলেই আপনাকে টাকা দেওয়া হবে।

বান্ধব (BandhoB) একাউন্ট খুলবেন কীভাবে?

প্রথমে প্লে স্টোর থেকে BandhoB অ্যাপটি মোবাইলে ডাউনলোড করে নিন। অথবা বান্ধব ওয়েবসাইট ক্লিক করে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। তারপর ইউজার নেম, ইমেইল পাসওয়ার্ড দিয়ে মিনিটেই অ্যাকাউন্ট খুলে ফেলুন।

অ্যাকাউন্ট খোলা শেষ হয়ে গেলে রেফারেল লিংক পেতে প্রোফাইলে ক্লিক করে জেনারেল সেটিংস-এ গেলে আপনি আপনার রেফারেল লিংক পাবেন, সেটি আপনি আপনার বন্ধুদের সঙ্গে নানান সোশ্যাল মিডিয়া যেমন ফেসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদিতে শেয়ার করে বন্ধুদের আমন্ত্রণ জানিয়ে টাকা আয় করতে পারেন। সেটিংস পেজে আপনার অর্জিত পয়েন্টও দেখা যাবে।

এছাড়াও একাউন্ট খুলতে বা অন্য কোন সমস্যা হলে বান্ধব (BandhoB) ফেসবুক গ্রুপে জানাতে পারেন। বান্ধব সাপোর্ট টিম অবশ্যই আপনাকে সাহায্য করবে। একাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে কাজ কীভাবে করবেন, আশা করি সবকিছুই ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। এখন আপনার মনে প্রশ্ন হচ্ছে আপনি কীভাবে টাকাটা হাতে পাবেন। সে সকল উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করছি।

BandhoB থেকে টাকা উইথড্র কীভাবে দিবেন?

বান্ধব থেকে টাকা হাতে পাওয়ার মতো সহজ কাজ আর নেই! আপনি খুব সহজেই এই সাইট থেকে টাকা তুলতে পারবেন। সেসব মাধ্যম হচ্ছে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, পেপ্যাল, বিকাশ, নগদ, রকেট ইত্যাদি। আরও মজার বিষয় হচ্ছে, চাইলে এই সাইট থেকে আপনি মোবাইল টপ-আপও নিতে পারবেন। সেজন্য বান্ধবের সাপোর্ট টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করলেই হয়ে গেলো। তারা সাধারণত ২৪-৭২ ঘণ্টার মধ্যেই আপনাকে রিপ্লাই দেবে। এ ছাড়া যোগাযোগ করতে পারেন বান্ধবের ফেসবুক পেজেও।

ন্যূনতম টাকা উত্তোলন

পেপাল ন্যূনতম ১০ ডলার (প্রতি মাসে একবার)

বিকাশ, নগদ, রকেট ন্যূনতম ৩০০ টাকা (প্রতি শুক্রবার)

মোবাইল টপ-আপ ন্যূনতম ১০০ টাকা (প্রতি শুক্রবার)

এই হচ্ছে পুরো প্রক্রিয়া। আপনি চাইলে খুব সহজেই প্রতিদিন আপনার বন্ধুদের ইনভাইট করে ভালো মানের ইনকাম করতে পারবেন। আর আপনার মনে যদি প্রশ্ন আসে, এই সাইটটি কি পেমেন্ট করে? আপনি এ ব্যাপারে শতভাগ নিশ্চিত থাকেন, এই সাইটটি যথাসময়ে আপনার টাকা পেমেন্ট করবে। আমি প্রথমেই বলেছি বান্ধব জার্মানি-ভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। উদ্যোক্তাদের মধ্যে একজন রয়েছেন বাংলাদেশি। সুতরাং পেমেন্ট নিয়ে ভাবার বিন্দুমাত্র প্রয়োজন নেই। বান্ধব নিয়ে প্রথম আলোপ্রতিবেদনটি পড়ে নিতে পারেন। এছাড়া WHOIS Domain Checker দিয়েও জেনে নিতে পারেন এটি কোথায় রেজিস্টার্ড। এছাড়া দেশি-বিদেশি অন্যান্য পত্রিকায়ও বান্ধবের প্রচুর নিউজ প্রকাশিত হয়েছে।

Subscribe For Latest Updates!

Get higher-study abroad, visa & migration-related latest updates from eGal!

Invalid email address
We promise not to spam you. You can unsubscribe at any time.

Nazmul Hasan

Assalamu Alaikum. This is Nazmul Hasan. I am from Bangladesh. I am Civil Engineering Student. I love to share information about higher studies and immigrants. Because many students fail to fulfill their dream of higher education only due to a lack of information

One thought on “সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে আয় করবেন যেভাবে

Leave a Reply

Your email address will not be published.